| |

Ad

চট্টগ্রামে পৃথক অভিযানে ৭ রোহিঙ্গা গ্রেফতার

আপডেটঃ ৫:১৬ অপরাহ্ণ | সেপ্টেম্বর ০৬, ২০১৯

চট্টগ্রাম প্রতিনিধি: চট্টগ্রাম মহানগরীতে পৃথক অভিযানে ৭ জন রোঙ্গিাকে গ্রেফতার করেছে পুলিশ। মহানগরীর বায়েজিদ বোস্তামী ও আকবর শাহ থানাধীন এলাকায় অভিযানকালে তাদের কাছ থেকে বাংলাদেশী পরিচয়পত্র ও পার্সপোর্ট উদ্ধার করা হয়েছে। 
পুলিশ জানায়, বায়েজিদ বোস্তামী থানার পাশে বার্মা কলোনি থেকে ৪ জন রোহিঙ্গাকে আটক করেছে পুলিশ। এদের মধ্যে একজন পুরুষ ও তিনজন নারী। একজনের কাছে বাংলাদেশের জাতীয় পরিচয়পত্র পাওয়া গেছে। 
শুক্রবার গভীর রাতে গোপন খবরের ভিত্তিতে বার্মা কলোনির একটি বাসা থেকে তাদের আটক করা হয়।
এ বিষয়ে বায়েজিদ বোস্তামি থানার ওসি আতাউর রহমান খোন্দকার বলেন, ওই চার জন কক্সবাজারের রোহিঙ্গা ক্যাম্পে থাকেন। চট্টগ্রামে বার্মা কলোনিতে এক আত্মীয়ের বাড়িতে বেড়াতে এসেছিলেন তারা। তবে আইন অনুযায়ী রোহিঙ্গাদের ক্যাম্পের বাইরে চলাফেরার কোনো সুযোগ নেই। তাই তাদের আটল করা হয়।
তাদের বিরুদ্ধে আইনগত ব্যবস্থা নেয়া হচ্ছে বলে তিনি জানান। 
এর আগে চট্টগ্রাম থেকে ঢাকায় অবস্থিত তুর্কি দূতাবাসে যাওয়ার পথে তিন রোহিঙ্গাকে আটক করেছে পুলিশ। গত বৃহস্পতিবার সন্ধ্যা ৭টায় নগরের সিডিএ ১ নম্বর সড়ক থেকে তাদের আটক করা হয়। আটক তিন  রোহিঙ্গা হলেন মো. ইউসুফ (২৩), মো. মুসা (২০) ও মোহাম্মদ আজিজ প্রকাশ আইয়াজ (২১)।
তাদের তিনজনই মায়ানমারের মংডু থেকে ২০১৭ সালে বাংলাদেশে প্রবেশ করে এবং বর্তমানে উখিয়া রোহিঙ্গা ক্যাম্পে পরিবার নিয়ে থাকত বলে জানা যায়।
এ ব্যাপারে আকবর শাহ থানার ওসি মোস্তাফিজুর রহমান বলেন, এলাকায় বিশেষ অভিযান পরিচালনার অংশ হিসেবে তাদের সন্দেহ হলে থানা পুলিশ তাদের পরিচয় জানতে চায়। কিন্তু তাদের কথায় গড়মিল থাকায় তল্লাশির এক পর্যায়ে পাসপোর্টসহ তাদের তিন জনকে করে  জিজ্ঞাসাবাদ করা হয়। একপর্যায়ে তারা স্বীকার করেন, মিয়ানমারের মংডুতে তাদের বাড়ি। ভুয়া নাম-ঠিকানা ব্যবহার করে দালালের মাধ্যমে পাসপোর্ট নিয়ে তুর্কি দূতাবাসে ভিসা করতে যাচ্ছিলো তারা।
তিনি আরো বলেন, পলাতক ও অজ্ঞাতনামা আসামিদের সহযোগীতায় ফেনী এবং নোয়াখালী জেলাসহ দেশের অজ্ঞাতনামা দালালদের মাধ্যমে পাসপোর্টে বর্ণিত ভুয়া নাম ঠিকানা ব্যবহার করে নোয়াখালী জেলা হইতে বাংলাদেশী পার্সপোট সংগ্রহ করে। পার্সপোর্টের বিনিময়ে তারা দালালদের বিভিন্ন অংকের বাংলাদেশী টাকা পরিশোধ করে। তাদের বিরুদ্ধে মামলা হয়েছে বলে জানান ওসি।