| |

Ad

সিলেটে চুরিতে বাধা দেয়ায় কিশোরকে হত্যা

আপডেটঃ ৮:০৪ অপরাহ্ণ | আগস্ট ১৬, ২০১৯

বিশেষ প্রতিবেদকঃ বয়স ১৫। ব্যাটারিচালিত অটোরিকশা চালিয়ে জীবিকা নির্বাহ করত নাঈম। নাঈমের অটোরিকশা চুরি করে নিয়ে যাচ্ছিল তারই দুই বন্ধু। এ চুরির দৃশ্য দেখে বাধা দিলে তাকে হত্যা করে চোররা। লাশ বস্তায় ভরে ফেলে রাখে একটি টিলায়। বৃহস্পতিবার এ ঘটনা ঘটে।

নাঈম বাসায় না ফেরায় রাতেই বিমানবন্দর থানায় সাধারণ ডায়েরি করেন তার বাবা আব্বাস আহমদ। এর সূত্র ধরেই পুলিশ শুক্রবার সকালে সন্দেহবশত তার দুই বন্ধু রুবেল ও পারভেজকে আটক করে। হত্যার কথা স্বীকার করে তারা। তাদের দেয়া তথ্যের ভিত্তিতে শুক্রবার সন্ধ্যায় শহরতলীর বালুচর লালটিলা এলাকা থেকে বস্তাবন্দি অবস্থায় নাঈমের লাশ উদ্ধার করে পুলিশ।

বিমানবন্দর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) এস এম শাহাদাত হোসেন জানান, রিকশা চুরি করে নিয়ে যাওয়ার সময় দেখে ফেলায় গামছা দিয়ে গলা পেঁচিয়ে শ্বাসরোধ করে নাঈমকে হত্যা করেছে বলে ওই দুজন পুলিশকে জানিয়েছে। তাদের দেয়া তথ্যের ভিত্তিতে মরদেহ উদ্ধারের পর ময়নাতদন্তের জন্য ওসমানী মেডিক্যাল কলেজ হাসপালের মর্গে পাঠানো হয়েছে। তবে নাঈমের অটোরিকশাটি এখনো উদ্ধার করা সম্ভব হয়নি।