| |

Ad

মণিরামপুর প্রেসক্লাবের নির্বাচনে সভাপতি লিটন ও মোতাহার সম্পাদক

আপডেটঃ ৬:৩২ অপরাহ্ণ | জুলাই ২০, ২০১৯

যশোর প্রতিনিধি: মণিরামপুর প্রেসক্লাবের দ্বি-বার্ষিক নির্বাচনে ফারুক আহাম্মেদ লিটন পুনরায় সভাপতি ও মোতাহার হোসেন সাধারণ সম্পাদক নির্বাচিত হয়েছেন। 
শনিবার (২০ জুলাই) সকাল ৯টা থেকে বেলা ২টা পর্যন্ত বিরতিহীনভাবে ১৭টি পদের মধ্যে ৯টি পদে মোট ৫০ জন ভোটার প্রত্যক্ষ ভোটাধিকার প্রয়োগ করেন। 
সংশ্লিষ্ট নির্বাচন কমিশন সুত্রে জানা যায়, এ নির্বাচনে ফারুক আহাম্মেদ লিটন ২৮ ভোট পেয়ে পুনরায় সভাপতি নির্বাচিত হয়েছেন। তাঁর নিকটতম প্রতিদ্বন্দ্বী সাবেক সভাপতি এসএম মজনুর রহমান পেয়েছেন ২০ ভোট। অপর সভাপতি প্রার্থী শাহিনুর রহমান পান্না পেয়েছেন মাত্র ১ ভোট। 
‍এদিকে সাধারণ সম্পাদক পদে বিনা প্রতিদ্বন্দ্বিতায় বর্তমান সাধারণ সম্পাদক মোতাহার হোসেন পুনরায় নির্বাচিত হয়েছেন। সহ-সভাপতি পদে শিক্ষক জিএম ফারুক আলম ৩৭ ভোট ও অধ্যাপক নূরুল হক ২৫ ভোট পেয়ে নির্বাচিত হয়েছেন। এ পদে অপর প্রতিদ্বন্দ্বি প্রার্থী ইলিয়াস হোসেন পেয়েছেন ২০ ভোট। 
যুগ্ম-সম্পাদক পদে হারুন-অর-রশীদ সেলিম ৩৭ ভোট ও আসাদুজ্জামান রয়েল ২৫ ভোট পেয়ে নির্বাচিত হয়েছেন। এ পদে অপর প্রতিদ্বন্দ্বী প্রার্থী প্রভাষক সঞ্জয় কুমার দে পেয়েছেন ২১ ভোট। 
সাংগঠনিক সম্পাদক পদে এস.এম সিদ্দিক ৩৫ ভোট পেয়ে নির্বাচিত হয়েছেন। তাঁর একমাত্র  প্রতিদ্বন্দ্বী তাজ উদ্দিন বাঁধন পেয়েছেন ১৩ ভোট।  দপ্তর সম্পাদক পদে শিক্ষক অশোক কুমার বিশ্বাস ৩০ ভোট পেয়ে নির্বাচিত হয়েছেন। তাঁর একমাত্র  প্রতিদ্বন্দ্বী প্রার্থী উজ্জ্বল কুমার রায় পেয়েছেন ১৯ ভোট। 
ক্রীড়া ও সংস্কৃতিক সম্পাদক পদে মো. রবিউল ইসলাম ৩১ ভোট পেয়ে নির্বাচিত হয়েছেন। তাঁর একমাত্র  প্রতিদ্বন্দ্বী জি.এম  টিপু সুলতান পেয়েছেন ১৭ ভোট। প্রচার সম্পাদক পদে আবু বক্কর সিদ্দিক ২৫ ভোট পেয়ে নির্বাচিত হয়েছেন। তাঁর একমাত্র  প্রতিদ্বন্দ্বী হারুন-অর-রশীদ পেয়েছেন ২৪ ভোট।  সাধারণ সম্পাদক মোতাহার হোসেনসহ অর্থ সম্পাদক পদে ডা. মিজানুর রহমান, আইসিটি সম্পাদক পদে শফিয়ার রহমান ও ৫ টি নির্বাহী সদস্য পদে যথাক্রমে অধ্যাপক হোসাইন নজরুল হক, মাস্টার আনিচুর রহমান, ইউনুচ আলী, গীতা রানী কুন্ডু ও মনোয়ার উদ্দিন আহমেদ একক প্রার্থী থাকায় তাঁদেরকে বিনা  প্রতিদ্বন্দ্বিতায় নির্বাচিত ঘোষণা করা হয়। 
নির্বাচন কমিশনের দায়িত্ব পালন করেন এড. মকবুল ইসলাম ও এড. বশির আহম্মেদ খাঁন। নির্বাচন কমিশনের সহযোগী হিসেবে দায়িত্ব পালন করেন মুক্তেশ্বরী ডিগ্রী কলেজের প্রভাষক মামুনুর রশীদ জুয়েল ও মণিরামপুর উপজেলা হিন্দু-বৌদ্ধ-খৃষ্টান ঐক্য পরিষদের আহবায়ক ও উপজেলা আ’লীগ নেতা তপন বিশ্বাস পবন। 
মণিরামপুর প্রেসক্লাবের সাংবাদিকদের পক্ষে নির্বাচন চলাকালীন সর্বক্ষণ অবস্থান নিয়ে নির্বাচন পর্যবেক্ষণ করেন প্রেসক্লাবের সিনিয়র সাংবাদিক অধ্যাপক মো. আব্বাস উদ্দীন। সুষ্ঠু ও শান্তিপূর্ণ পরিবেশে নির্বাচন আয়োজনের জন্য তাৎক্ষনিক প্রক্রিয়ায় নির্বাচন কমিশনকে ধন্যবাদ জানান প্রেসক্লাবের পক্ষ থেকে প্রেসক্লাবের বারবার নির্বাচিত সাধারণ সম্পাদক মোতাহার হোসেন।